ভাগ‍্যের কি নিষ্ঠুর পরিহাস

” ভাগ‍্যের কি নিষ্ঠুর পরিহাস ”

( বিঃদ্রঃ আনন্দবাজার পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হওয়ার পর নব দিগন্ত টিম পরিদর্শন এ যায়) –

সাধ ছিলস্কুল থেকে ফিরে মায়ের হাতের রান্না খেয়ে , সবাই একসাথে দৌড় ঝাপ করে খেলা করে বেড়াবো, কিন্তু , নিয়তি যখন বিদ্রোহ করে…!! কিছু দুর্ঘটনা সবাই কে তা হতে দেয়না. দেগঙ্গা থানার অন্তর্গত হাদিপুর গড় পাড়া গ্রাম এর বেড়াচাঁপা দেউলিয়া উচ্চ বিদ্যালয় এর সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র আকিবুর দফাদার এর সেরকম ই ঘটলো. ছোট বেলা থেকেই পিতৃহীন !! আর আগুনের দাবদাহ তাকে বিছানা শয্যাশাহী করে অচল করে রেখেছে. বছর বারোর ছেলেটি নিজের ছোট্ট কুঁড়ে ঘরের বারান্দায় বসেছিল পাশে তার মা মোসলেমা বিবি রান্না করতে করতে চুলোর পাশে জড়ো করা কাঠে আগুন লেগে যাই সেই আগুন ছোট্ট শিশুকে গ্রাস করার চেষ্টা করে তার মা তার জীবন এর উপর বাজি রেখে বাঁচাতে গেলে মা ও জখম হন. আকিবুর কে ভর্তি করা হয় আর জি কর মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল এ. শরীর এর ওপর এর বেশির ভাগ টাই পুরে গেছিলো পা এর মাংস ও চামড়া কেটে পুরে যাওয়া অংশ পূরণ করা হয়. এই ভাবে টানা পাঁচ মাস কেটে যায় হাসপাতাল এ আকিবুর তার মা ও দিদির. আকিবুরের তো হাসপাতালে চিকিৎসা খাওয়া ব্যবস্থা কিন্তু তার মা ও পিতৃহীন দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী দিদির থাকা খাওয়া টাকা কোথায় পাবে,,প্রতিদিন তাদের সাতশো আটশো টাকা খরচা হতো সেই টাকা বিভিন্ন ভাবে সাহায্য নিয়ে চালিয়েছে কোনোরকম ভাবেখেয়ে না খেয়ে। আকিবুর এর মা বাড়ি বাড়ি কাজ করে সংসার চালায় কিন্তু সেটা ও বন্ধ এই আট মাস সংসার এ নেই খাওয়ার ব্যাবস্তা, মেয়ের পড়াশোনা এর খরচ আবার ছেলের এই অবস্থা মা কি করবে কিছু বুজতে পারছে না, ওই অবস্থা তে হসপিটালের ছুটি মেলে ছেলের, কোনোরকম বাড়িতে আনেন পোড়া শীর্ণকায় ছেলের, ডাক্তার বাবু বলেছিলেন দুই সপ্তাহ পর পর হাসপাতালে নিয়ে আসতে হবে ড্রেসিং করাতে,,, কিন্তু টাকার অভাবে আর নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি তার খেটে খাওয়া মা এর পক্ষে, আর তার ফল এর অবস্থা অবনতি হচ্ছে দিন দিন, মাঝে মাঝে রক্ত ক্ষরণ হচ্ছে, দুটো পা ফিজিওথেরাপি এর অভাবে সোজা করতে পারছে না, হাত নাড়তে পারছে না ভালো ভাবে,,,,আকিবুর ব্যাথা বেদনা মিশ্রিত নিয়ে চিৎকার করে করে বলছে আমি বাঁচতে চাই, আমি স্কুল এ যেতে চাই, বন্ধু দের সঙ্গে খেলতে চাই, অনেক দিন আমি খেলার মাঠে যায়নি আমাকে নিয়ে চলুন আমি মাঠে যাবো……
দারিদ্র্যের করাল গ্রাস আর সন্তানের প্রান ভিক্ষা –এক মমতাময়ী মা-এর করজোড়ে অশ্রু ভেজা দুই নয়নের আর্তি “আমার ছেলেটা যেন সুস্থ হয়ে যাই, হাঁটতে পারে আমি আর কিছু এই চাইনা” ……আপনাদের সাহায্য ও সহযোগিতার পথ চেয়ে গোটা পরিবার…..
নব দিগন্ত ওদের পাশে দাঁড়াতে চায় আপনাদের সহযোগিতায়, যে কোনও রকমের সহযোগিতা কাম্য।
যোগাযোগ :9775125467
Email :nabadiganta2014@gmail.com
Website :www.nabadiganta.nethttp://www.nabadiganta.net
Paytm /BHIM /PHONE PE /TEZ available on@9775125467
Net Banking available
Account number given below.